মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

বিস্তারিত

প্রশাসন :
১৮৬৩ সালে মোল্লাহাট থানা প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯৮৩ সালে মোল্লাহাট থানাকে উপজেলায় পরিণত করা হয়।  ০৭টি ইউনিয়ন পরিষদ, ৫৯টি মৌজা, ১০২টি গ্রাম নিয়ে গঠিত এই উপজেলা। বর্তমানে মোল্লাহাট উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীনুল আলম (ছানা) এবং উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাহবুব আলম ।



ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান :
মসজিদ ৩৩৭টি, মন্দির ১০৫টি, গীর্জা ০৫টি, পবিত্র স্থান২টি।

সাক্ষরতা :
গড় সাক্ষরতা ৮৪.৫%, পুরুষ
৬৮%ও মহিলা ৬২%।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান :
কলেজ ৫ টি, উচ্চ বিদ্যালয় ১৯টি, মাদ্রাসা ৩১টি, সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ১০৯টি, বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ।


সাংস্কৃতিক সংগঠন :
ক্লাব ৫২টি, গ্রন্থাগার ৫টি, অপেরা দল ১টি,, মহিলা সংগঠন ৬টি, খেলার মাঠ ৩৭টি।

প্রধান পেশা :
কৃষি ৫৮.৫৪%, কৃষি শ্রমিক ২৪.১০%, মজুরী শ্রমিক ১.৮৯%, ব্যবসা বাণিজ্য ৮.০৫, চাকরি ৩.২৯, মৎস্য চাষ ১০.১৫%, শিল্প ১%, পরিবহন ১.৬৯%, অন্যান্য ৪.২৯%।

জমির ব্যবহার :
মোট আবাদযোগ্য জমি ৫৫,৪১৩ একর বা
২৩,৮৩৪ হেক্টর, পতিত জমি ৩৬.৪২ হেক্টর, একক ফসল ৩,০১৫ হেক্টর, দ্বিফসল ৪,৩৬৭ হেক্টর এবং ত্রিফসল ৯,১১৮ হেক্টর

ভূমি নিয়ন্ত্রণ :
কৃষকদের মধ্যে ১৬.৯৮% ভূমিহীন, ৫৫% ক্ষুদ্র, ২১.৬৭% মাঝারী এবং  ৬.৩৫% ধনী।

প্রধান ফসল :
ধান, গম, পাট, আলু, মরিচ, সরিষা, বেগুন ও পটল। বিলুপ্ত অথবা প্রায় বিলুপ্ত ফসলের মধ্যে রয়েছে তিসি, চীনা, কাউন।

প্রধান ফল :
আম, কাঁঠাল, লিচু, কালোজাম, পেঁপে, পেয়ারা, তাল, নারিকেল, সুপারী, ছবেদা।


ঐতিহ্যগত পরিবহন :
পাল্কী, দুলকী ও তাবুরিয়া নৌকা। এ ধরনের পরিবহন হয় বিলুপ্ত অথবা প্রায় বিলুপ্ত।

কুঠির শিল্প :
তাঁত, বাঁশের ও বেতের কাজ, স্বর্ণকার, কর্মকার, কুম্ভকার, কাঠের কাজ, দর্জি, ওয়েল্ডিং।

হাট বাজার ও মেলা :
হাট ও বাজার ১৮টি এবং মেলা ৪টি। এগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে চাদের হাট কালি পূজা মেলা, ।

প্রধান রপ্তানী :
চিড়িং মাছ, নারিকেল, সুপারী, কাঁঠাল, কলা, পাট ও পেঁপে।

এনজিও তৎপরতা :
তৎপরতা চালাচ্ছে এমন গুরুত্বপূর্ণ এনজিওগুলো হচ্ছে ব্র্যাক, আশা, মহিলা সংঘ, রূপান্তর।

স্বাস্থ্য কেন্দ্র :
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ১টি (৪০ বেড), স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কেন্দ্র ৭টি ও স্যাটেলাইট ক্লিনিক ৩টি।

অন্যান্য তথ্য :
স্যানিটারী ল্যাট্রিন ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৪৮%, বিশুদ্ধ পানি ব্যবহারকারীর হার ৯০%, আর্সেনিক মুক্ত নলকূপের সংখ্যা ১৬৪৯টি,  স্বাস্থ্যসম্মত পায়খানা ব্যবহারকারীর হার ৪৮%, আশ্রয়ন প্রকল্প ৪২টি পরিবার, আবাসন প্রকল্প ০১টি।